গ্রাহক কম, শেষ দিনে ব্যাংকে ছুটির আমেজ

প্রকাশিত: ১০ অগাস্ট, ২০১৯ ০২:০৫:৩৫

ঈদের ছুটিতে প্রায় ফাকা হয়ে গেছে রাজধানী। শেষ কার্যদিবসে টাকা জমা ও উত্তোলন করার মতো কিছু গ্রাহক অবশিষ্ট রয়েছে ঢাকায়। বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা অনুযায়ী ঈদের ছুটি শুরু হওয়ার আগের শুক্র, শনিবার খোলা রয়েছে ব্যাংকের শাখাগুলো। কিন্তু গ্রাহকের সংখ্যা একেবারেই কম।

রাজধানীর মতিঝিলে অবস্থিত সোনালী ব্যাংকের লোকাল ব্রাঞ্চের চিত্র দেখে মনে হচ্ছিল এ যেন ফুটবল খেলার মাঠ। গ্রাহকদের সংখ্যা ছিল যেটা তা হাতেই গুনে ফেলা যায়। দীর্ঘ লাইন জুড়ে সজ্জিত আছে কাউন্টারগুলো। কিন্তু পুরো ব্রাঞ্চে লোক (গ্রাহক) সংখ্যা মাত্র ১২ জন। সকলের হাতে ছিল ব্যাংকের চেক। শেষ মুহূর্তে চেক ভাঙিয়ে টাকা তুলতে এসেছেন তারা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তারা বলেন, শুধু শুধু আফিস করছি আমরা। বেশিরভাগ মানুষ গ্রামের উদ্দ্যেশ্যে রওনা দিয়েছেন। এখন আমরা শুধু কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা পালন করছি। দুই একটি কাউন্টার ছাড়া সকলেই অলস সময় পার করছে। এখানে থেকে মশা তাড়ানো ছাড়া কোনো কাজ নেই।

এদিকে ইসলামী ব্যাংকের লোকাল শাখাতে গিয়েও একই চিত্র লক্ষ্য করা যায়। মাত্র কয়েকজন মানুষ টাকা জমা দিচ্ছেন অনলাইনে। নেই দীর্ঘ লাইন ও ভোগান্তি।

এর মধ্যে একজন গরু ব্যবসায়ী জানান, ঢাকায় গরু বিক্রি করে বাসায় ফিরছি। গরু বিক্রি করা এতো টাকাতো আর হাতে বহন করা যায় না। সে কারণেই আজ ব্যাংকে আসা। ছুটির দিনেও ব্যাংক খোলা পাওয়াতে বেজায় খুশি সেই গরু ব্যবসায়ী।

উল্লেখ, শনিবার (৪ আগস্ট) ঈদের পূর্বে তৈরি পোশাক শিল্পে কর্মরত শ্রমিক/কর্মচারীদের বেতন ও অন্যান্য ভাতাদি পরিশোধের সুবিধার্থে এবং রপ্তানি বাণিজ্য সচল রাখার স্বার্থে ৯ ও ১০ আগস্ট শুক্র এবং শনিবার পূর্ণ দিবস ব্যাংক খোলা রাখার নির্দেশ দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন