কাশ্মীর সংকট নিয়ে জাতিসংঘ গভীর উদ্বিগ্ন

প্রকাশিত: ০৮ অগাস্ট, ২০১৯ ১২:২৩:১৯

ভারত অধিকৃত কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। ভারতের সংবিধানের ৩৭০ ও ৩৫-ক অনুচ্ছেদের বিলোপ এবং রাজ্য থেকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত হওয়া জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে ভারত সরকারের সিদ্ধান্তে অত্যন্ত চিন্তিত জাতিসংঘ।

কাশ্মীরে এ মুহূর্তে ভারত সরকার যে শর্তগুলো চাপিয়েছে, তাতে মানবাধিকার পরিস্থিতি আরো খারাপ দিকে যাবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। পাশাপাশি কাশ্মীর উপত্যকা অঞ্চলে সব ধরনের টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা ও ইন্টারনেট সেবা বন্ধ থাকায় সেখানকার কোনো খবর পাওয়া যাচ্ছে না বলেও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক মুখপাত্রের এমন বক্তব্যের পর নতুন মাত্রা পেল কাশ্মীর ইস্যু।

জাতিসংঘের পক্ষ থেকে গতকাল বুধবার এক টুইটে বলা হয়, ‘কাশ্মীরে আইনি কড়াকড়ি চলছে। মানবাধিকার পরিস্থিতি আরো খারাপ হচ্ছে। কোনো তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হয়ে উঠছে।’

টুইটারে ভিডিও পোস্টে জাতিসংঘের মুখপাত্র জানান, নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপের ফলে কাশ্মীর উপত্যকার উদ্বেগজনক মানবাধিকার পরিস্থিতি ‘নতুন মাত্রায়’ পৌঁছেছে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করার পর অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে ওই অঞ্চলের টেলিযোগাযোগ ও ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেয় মোদি সরকার। এতেই উদ্বিগ্ন জাতিসংঘ।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের এমন পদক্ষেপ কাশ্মীর উপত্যকার জনগণকে ‘জম্মু ও কাশ্মীরের ভবিষ্যৎ নিয়ে গণতান্ত্রিক পন্থায় আলাপ-আলোচনায় অংশ নেওয়ার পথ বন্ধ করে দেবে’ বলেও সতর্ক করেন জাতিসংঘের মুখপাত্র।

প্রজন্মনিউজ/দেলাওয়ার হোসাইন।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ