ছাত্রদলের ‘বিক্ষুব্ধদের’ ক্ষমা করে দিলেন তারেক

প্রকাশিত: ০৬ অগাস্ট, ২০১৯ ১০:৩১:৫১

বিএনপির ছাত্রসংগঠন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের বিলুপ্ত কমিটির ‘বিক্ষুব্ধ’ নেতাদের ক্ষমা করে দিয়েছেন দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমান।

সোমবার (৫ আগস্ট) সন্ধ্যায় গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে স্কাইপের মাধ্যমে দীর্ঘ প্রায় চার ঘণ্টা তারেক রহমানের সঙ্গে ‘বিক্ষুব্ধ’ নেতাদের বৈঠক হয়। সেখানেই তারেক ‘বিক্ষুব্ধদের’ ক্ষমা করে দেওয়ার কথা বলেন। ওই বৈঠকে উপস্থিত একাধিক ছাত্রনেতার সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

জানতে চাইলে বিলুপ্ত কমিটির সহ-সভাপতি মামুন বিল্লাহ বলেন, আমরা তারেক রহমানকে বলেছি আপনি আমাদের অভিভাবক। আপনি আমাদের পিতা-মাতা-বড় ভাই। আমরা অন্যায় করেছি। আপনি আমাদের ক্ষমা করে দিন। তিনি আমাদের বক্তব্য শুনে বড় ভাই হিসেবে ছোট ভাইদের ক্ষমা করে দিয়েছেন।

দীর্ঘদিন যাবত ছাত্রদলের নতুন কমিটি গঠন নিয়ে অচলাবস্থা চলছিল। তবে সোমবারের বৈঠকের পর সেই অচলাবস্থার নিরসন হতে যাচ্ছে বলে আভাস ছাত্রদলের সংশ্লিষ্টদের। তারা বলছেন, তারেক রহমান দীর্ঘ সময় ‘বিক্ষুব্ধদের’ বক্তব্য শুনেছেন। তিনি ‘বিক্ষুব্ধ’ ছাত্রনেতাদের কাছে জানতে চেয়েছেন, তিনি যে সিদ্ধান্ত দেবেন সেটা তারা মেনে নেবেন কি-না। ছাত্রনেতারা তার সঙ্গে একমত পোষণ করে বলেছেন, তিনি যা সিদ্ধান্ত দেবেন তারা সেটা মেনে নেবেন।  

তখন তারেক রহমান ছাত্রনেতাদের বলেছেন, ‘তোমরা তোমাদের রাজনৈতিক যাত্রা শুরু করো। আমি তোমাদের জন্য যা করার সব করবো। তোমাদের রাজনীতি আমি দেখবো।’

ছাত্রনেতারা তিন মাসের জন্য একটা আহ্বায়ক কমিটি চেয়েছেন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের কাছে। জবাবে তারেক রহমান তাদের বলেছেন, ‘এ বিষয়ে শিগগির তোমাদের জানাবো।’

বিক্ষুব্ধদের সঙ্গে তারেকের এই ভার্চুয়াল বৈঠকে যুবদলের সাধারণ সম্পাদক ও ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু উপস্থিত ছিলেন।

প্রজন্মনিউজ/দেলাওয়ার হোসাইন।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ