বাইকারদের জন্য গুগলে নতুন ফিচার

প্রকাশিত: ২৭ জুলাই, ২০১৯ ১১:২১:৫২

গুগল ম্যাপে নতুন বেশ কয়েকটি ফিচার চালু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। বৈশ্বিক সুবিধা থেকে আঞ্চলিক সুবিধায় পথচলা শুরু করেছে গুগল। তাদের ম্যাপে বাংলাদেশের জন্য তিনটি নতুন ফিচারের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছে। গুগল গত কয়েক মাস ধরে তাদের ম্যাপে বিশ্বব্যাপী নতুন নতুন সব ফিচার যুক্ত করছে। কয়েকটি ইতিমধ্যে বাংলাদেশের ব্যবহারকারীরা আপডেট পেয়েছেন।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর গুলশানে লেকশোর হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন ফিচারের কথা জানায় গুগল। প্রতিষ্ঠানটি বলছে, তারা ম্যাপে বাংলাদেশের ৫০ হাজার কিলোমিটারের বেশি পথ যুক্ত করেছে। সাথে যুক্ত করেছে ৮ মিলিয়ন ভবন।

নতুন ফিচারের মধ্যে বাইকারদের জন্য নতুন নেভিগেশন মোড রাখা হয়েছে। আগে গন্তব্যে পৌঁছানোর সময় বুঝতে বাইকারদের আনুমানিক হিসাবের ওপর ভরসা রাখতে হতো। কিন্তু নতুন ফিচারে গুগল প্রয়োজনীয় ‘প্রায় সঠিক’ সময় দেখাবে। যাত্রা শুরুর আগে স্ট্রিট ভিউ ইমেজের মাধ্যমে নির্দেশনাও আসবে।

আরেকটি ফিচার হচ্ছে বাংলা সংযুক্তকরণ। স্থানীয় ভাষায় টার্ন-বাই-টার্ন ভয়েস নেভিগেশন সুবিধা রাখা হয়েছে। এখন থেকে রাস্তা এবং সব জায়গার নাম গুগল আপনাকে বাংলায় বলে দেবে।

তৃতীয় ফিচারটি নিরাপত্তা বিষয়ক। গুগল যাকে বলছে স্টে সেফার এবং সেট অফ-রুট অ্যালার্টস। গন্তব্য সার্চ করার পর আপনি নির্দেশনা পাবেন, গুগলের দেখানো পথ থেকে আপনার গাড়ি .০৫ কিলোমিটার উল্টো দিকে চলে গেলে আপনার ফোনে সংকেত আসবে। যেকোনো স্থানে বসে বন্ধু কিংবা পরিবারের সঙ্গে আপনার অবস্থান শেয়ার করতে পারবেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক। তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে আমরা ইতোমধ্যেই উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি। তথ্যপ্রযুক্তি খাতের বিকাশে উপযুক্ত ইকোসিস্টেম তৈরিতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। এর ফলেই দেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতে দেশি ও বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে।

জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, আমাদের প্রতিটা কাজের সাথে গুগল সম্পৃক্ত হয়ে গেছে। গুগল যা নিয়ে এসেছে তা আমাদের প্রয়োজনে নিয়ে এসেছে। তথ্যপ্রযুক্তির উন্নতির ফলে অনেক নতুন জব তৈরী হয়েছে যেগুলো আগে ছিলোনা। আবার আগামী ১০ বছর পর এমন কিছু জব তৈরী হবে যা আমরা কল্পনাও করতে পারবো না।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের লাখ লাখ মানুষ গন্তব্য খুঁজে বের করতে, পথনির্দেশনা পেতে এবং যানজট এড়াতে বেছে নিচ্ছেন গুগল ম্যাপস এর মতো পরিষেবা, যা ইতোমধ্যেই আমাদের দৈনন্দিন জীবনের এক অবিচ্ছেদ্য অংশে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশের মানচিত্রায়নে গুগলের নিরলস প্রচেষ্টাকে আমি সাধুবাদ জানাই।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, গুগল ম্যাপস এর ডিরেক্টর প্রডাক্ট ম্যানেজেমেন্ট ক্রিশ ভিতালদেভারা, গুগল ম্যাপস এর সিনিয়র পোগ্রাম ম্যানেজার অনল ঘোষ, গুগল এর বিজনেস অপারেশন্স লিড বিকি রাসেল এবং গুগল এর বিজনেস ডেভেলপমেন্ট এন্ড অপারেশন্স জেসিকা বায়ার্ন।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ