ডেঙ্গু আক্রান্তদের বিনা মূল্যে চিকিৎসা দেবে ডিএসসিসি

প্রকাশিত: ১৬ জুলাই, ২০১৯ ০৪:৪১:৩৯

ডেঙ্গু ভাইরাসে আক্রান্ত হলে নগরবাসীকে আতঙ্কিত না হয়ে হটলাইন নম্বরে (০৯৬১১০০০৯৯৯) ফোন দিয়ে জানানোর পরামর্শ দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। সোমবার দুপুরে ডিএসসিসি নগর ভবনে ‘বিশেষ প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা পক্ষ-২০১৯’-এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ পরামর্শ দেন।

ডিএসসিসি মেয়র বলেন, নগরবাসীর কাছে অনুরোধ, ডেঙ্গু হলে আতঙ্কিত না হয়ে ধৈর্য ধরুন। আমাদের হট নম্বরে ফোন দিয়ে জানান, স্বাস্থ্যকর্মী আপনার বাসায় পৌঁছে বিনা মূল্যে চিকিৎসা ও ওষুধপত্র দেবেন।

তিনি আরও বলেন, যারা ডেঙ্গু ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন, তাদের চিকিৎসাসেবা প্রদানে ৬৮টি মেডিকেল টিম গঠন করেছি। এ মেডিকেল টিম আমাদের ৪৭৬টি কেন্দ্রে বিনা মূল্যে ওষুধ দেবে। যদি আমাদের স্বাস্থ্যকর্মীরা মনে করেন, কোনো রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে হবে, তাহলে আমাদের মহানগর জেনারেল হাসপাতাল ও শিশু হাসপাতালে বিনা মূল্যে ভর্তি করা হবে।

তাই কেউ এ রোগে আক্রান্ত হলে আমাদের হটলাইন নম্বরে কল দিন। আমাদের মেডিকেল টিম আপনার বাসায় পৌঁছে যাবে। শুধু ডেঙ্গু রোগী নয়, যদি আবহাওয়াজনিত কোনো রোগ যেমন: সর্দি, জ্বর হয়, সেগুলোরও প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, ডিএসসিসি এলাকায় ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব গত দু-তিন বছরের তুলনায় কিছুটা বেড়েছে। কিন্তু আতঙ্কিত হওয়ার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি। ঘাবড়ে যাওয়ারও কোনো কারণ নেই।

আমরা বিশেষজ্ঞদের নিয়ে যে সেমিনার করেছি, সেখানে তারা আমাদের জানিয়েছেন ৯৭ থেকে ৯৯ ভাগ রোগী সামান্য জ্বরে আক্রান্ত হয় এবং সাত থেকে ১০ দিনের মধ্যে তা সেরে যায়। ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সিটি কর্পোরেশনের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ শক্তি নিয়োগ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, পহেলা জুলাই থেকে নগরীর প্রতিটি পাড়া-মহল্লায়, অলিতে-গলিতে মশার ওষুধ ছিটানো হচ্ছে। পাশাপাশি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমও চলছে। জনগণকে সচেতন করতে বিভিন্ন জায়গায় লিফলেট বিতরণ চলছে। মসজিদের ইমামদের খুতবার সময় মুসল্লিদের সচেতন করতে বলা হয়েছে। অন্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলোকেও এ বিষয়ে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

জনগণকে সচেতন করার চেষ্টায় আমাদের কোনো কমতি নেই। নগরবাসীকে সচেতন করার মধ্য দিয়ে আমরা ডেঙ্গু মোকাবেলায় এগিয়ে চলেছি। আমরা আশা করছি, দ্রুততম সময়ের মধ্যে একটি ডেঙ্গুমুক্ত শহর আমাদের নাগরিকদের জন্য নিশ্চিত করতে পারব।

ডিএসসিসির স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, চলতি বছর ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন ৪ হাজার ২৪৭ জন। তার মানে এটা নয় যে, এসব রোগী ডিএসসিসি কিংবা ডিএনসিসি এলাকার। এ তথ্য সারা বাংলাদেশের।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যমতে, গত ৭ জুলাই থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত ডিএসসিসি এলাকায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৮৬ জন। তার মধ্যে সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরেছেন ৫২ জন। চিকিৎসা নিচ্ছেন ৩৪ জন। আমরা আশা করছি, বাকি রোগীও দ্রুত সুস্থ হয়ে বাসায় ফিরবেন।

এ সময় মেয়র গণমাধ্যমকে উদ্দেশ করে বলেন, সরকারি দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থা-রোগ তত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউট (আইইডিসিআর) তথ্য দিচ্ছে, গত জানুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৩ জন।

কিন্তু দু-একটি গণমাধ্যমে অসমর্থিত সূত্রের বরাত দিয়ে বলছে এ রোগে মারা গেছে ১১ জন। যেটা অত্যন্ত দুঃখজনক। তাই গণমাধ্যমকে অনুরোধ করছি, তারা যেন সমর্থিত সূত্র থেকে তথ্য সংগ্রহ করে সংবাদ প্রকাশ করে। সেই সঙ্গে নির্বাচিত মেয়র হিসেবে নগরবাসীকে আশ্বস্ত করে বলতে চাই, আপনারা বিভ্রান্ত হবেন না।

তিনি আরও বলেন, দ্রুততম সময়ের মধ্যেই ডেঙ্গু মশা নিধনে বাসাবাড়িতে মশকনিধন কর্মীরা যাবেন। এ ছাড়াও তাদেরকে বাসাবাড়িতে ঢুকতে দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন ডিএসসিসির মেয়র। এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শরীফ আহমেদ, ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিমের স্বাস্থ্যকর্মী প্রমুখ।

প্রজন্মনিউজ২৪/মামুন

 

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ