হংকং প্রশাসককে জোরালো সমর্থন দেওয়ার প্রত্যয় চীনের

প্রকাশিত: ১৭ জুন, ২০১৯ ০৩:৪৮:৩২

হংকংয়ের প্রশাসক ক্যারি ল্যামের পদত্যাগের দাবিতে যখন উত্তাল হংকংয়ের রাজপথ, সে মুহূর্তে তাঁকে জোরদার সমর্থন দেওয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করল চীন।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লু কং আজ সোমবার বলেন, ‘(হংকংয়ের) প্রধান নির্বাহীকে দেওয়া দৃঢ় সমর্থন অব্যাহত রাখবে কেন্দ্রীয় সরকার। সেইসঙ্গে বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চলের সরকার আইন অনুযায়ী চলার যে চেষ্টা করছে, তার প্রতিও কেন্দ্রীয় সরকার দৃঢ় সমর্থন অব্যাহত থাকবে।’

বিতর্কিত অপরাধী প্রত্যর্পণ বিল স্থায়ীভাবে বাতিলের দাবিতে হংকংয়ে কয়েক লাখ মানুষের বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। বিবিসির এক প্রতিবেদনে সোমবার বলা হয়েছে, প্রায় ২০ লাখ মানুষ মিছিল করে হংকং গভর্নর হাউসের কাছে পৌঁছে অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছে।

যদিও বিতর্কিত বিলটি আপাতত স্থগিত করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে, তার পরও বিক্ষোভকারীরা হংকংয়ের চীনপন্থী শাসক ক্যারি ল্যামের পদত্যাগ দাবি করেছেন। এ দুই দাবিতে রোববার সন্ধ্যার পরও মোবাইলের আলো জ্বালিয়ে অভিনব কায়দায় প্রতিবাদ জানিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

এদিকে জেল থেকে মুক্তি পেয়েই চলমান বিক্ষোভের সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করে প্রশাসকের পদত্যাগ দাবি করলেন হংকংয়ের পূর্ণাঙ্গ গণতন্ত্রপন্থী নেতা জশুয়া ওং।

হংকংয়ে ২০১৪ সালে পূর্ণাঙ্গ গণতন্ত্রের দাবিতে ৭৯ দিনব্যাপী চলা ‘আমব্রেলা’ আন্দোলনের অন্যতম ছাত্রনেতা জশুয়া ওং আজ সোমবার জেল থেকে ছাড়া পেয়ে বলেন, ‘আমি শয়তানি আইনের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যোগ দেব। আমি বিশ্বাস করি, মিথ্যুক ক্যারি ল্যামের পদত্যাগের সময় হয়েছে।

হংকংয়ের রাজপথে এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বিক্ষোভ চলছে। বিক্ষোভকারীদের হটাতে লাঠি, কাঁদানে গ্যাস, জলকামান, রাবার বুলেটও ব্যবহার করেছে পুলিশ। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের দফায় দফায় সংঘর্ষে আন্দোলন চলাকালে আহত হয়েছেন ৮০ জনের বেশি, যার মধ্যে ২২ পুলিশ সদস্যও রয়েছেন। এত কিছুর পরও থেমে থাকেননি হংকংয়ের গণতন্ত্রপন্থীরা।

প্রজন্মনিউজ২৪/নাবিল

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন