কৌতুক অভিনেতা থেকে প্রেসিডেন্ট

প্রকাশিত: ৩০ মে, ২০১৯ ০৩:৫১:১০

নব নির্বাচিত ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির জেলেনস্কি। তিনি এখন সবচেয়ে জনপ্রিয় নাম। প্রেসিডেন্ট হবার পর জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া তার ভাষণ সাড়া ফেলে দিয়েছে দুনিয়া জুড়ে। বিশেষ করে দেশের সরকারি অফিস আদালতে প্রেসিডেন্ট হিসেবে তার ছবি না টানানোর জন্য আহ্বান করেছেন তিনি। পরিবর্তে পরামর্শ দিয়েছেন নিজেদের সন্তানের ছবি যেন টানান কর্মকর্তারা। সেই সন্তানের মুখ দেখে প্রতিদিনের কাজ শুরু করতে পারবেন সবাই। তাহলে কেউ মন্দ কাজে উৎসাহ পাবেন না। তার এই বক্তব্য হৃদয় ছুঁয়ে নিয়েছে মানুষের।

এই প্রেসিডেন্টকে নিয়ে আলোচনা এখন সবখানে। আরও একটি কারণে তিনি সবার নজর কেড়েছেন। সেটি হলো কৌতুক অভিনেতা থেকে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ সম্মানিত ব্যক্তিতে পরিণত হয়েছেন ভ্লাদিমির। বিশ্বের অনেক গণমাধ্যম বলছে একজন মানুষের জীবনে কিংবা একজন অভিনেতার জন্য এ এক অন্যন্য কীর্তি। ভ্লাদিমির অভিনেতা থেকে ভোটে অংশগ্রহণ করে নির্বাচিত হলেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট।

জানা গেল, মাত্র ১৭ বছর বয়সেই থিয়েটারে কৌতুক অভিনেতা হিসেবে জীবন শুরু করেন ভ্লদিমির জেলেনস্কি। পরবর্তীতে কাজ করেছেন বেশ কয়েকটি টিভি সিরিজ ও সিনেমায়। শুধু তাই নয় প্রতিষ্ঠিত করেছেন ‘কাভারটাল ৯৫’ নামের নিজের একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানও।

জেলেনস্কি আলোচনায় আসেন তার নির্মিত ও অভিনীত টিভি সিরিজ ‘সারভেন্ট অব দ্য পিপল’- এ প্রেসিডেন্ট চরিত্রে অভিনয় করে। সিরিজটি ২০১৫-২০১৮ সাল পর্যন্ত প্রচারিত হয় ইউক্রেনের একটি চ্যানেলে। এই সিরিজটির নামেই নিজের রাজনৈতিক দলের নাম দিয়েছেন জেলেনস্কি। মাত্র ৪১ বছর বয়সেই ৭৩ শতাংশ বিপুল ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি৷

শোবিজের ক্যারিয়ারে জেলেনস্কি কাজ করেছেন ‘লাভ ইন দ্য বিগ সিটি’, ‘অফিস রোমান্স’ ও ‘রেজভেস্কি ভার্সেস নেপোলিয়ান’ নামক তিনটি চলচ্চিত্রেও।

প্রজন্মনিউজ২৪/মুজাহিদ

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন