তারকাদের আইডি হ্যাক করছে কারা?


প্রায় প্রতি মাসেই খবর পাওয়া যায় কোনো না কোনো তারকা আইডি হারাচ্ছেন। এর আগে কালেভদ্রে কিছু আইডি হ্যাকিংয়ের শিকার হতো। তবে গেল বছর থেকে নিয়মিতই তারকাদের বিব্রতকর পরিস্থিতির শিকার হতে হচ্ছে।

হ্যাকিংয়ের কবলে পড়েছেন চলচ্চিত্র তারকা পপি, মাহিয়া মাহি, অপু বিশ্বাস, জায়েদ খান, সাইমন, বাপ্পী, বিপাশা কবিরসহ আরও অনেকে। এ তালিকায় আছেন কণ্ঠশিল্পী সালমা, অভিনেতা আনিসুর রহমান মিলন, অভিনেত্রী সাবিলা নূর, আশনা হাবিব ভাবনা প্রমুখ।

কারণ কী? হঠাৎ করে শোবিজে কেন বাড়লো হ্যাকারদের উপদ্রব! কেন হ্যাকাররা তারকাদের আইডির প্রতি এত নজর দিচ্ছেন?

সেই কারণ অনুসন্ধান করতে আইডি হ্যাক হওয়ার পর তা ফেরত পাওয়া বেশ ক’জন তারকার সঙ্গে কথা বলে পাওয়া গেল চমকপ্রদ তথ্য। তারা জানালেন প্রিয় তারকার প্রতি অতিমাত্রার কৌতুহলের বশেই আইডিগুলো হ্যাক করে থাকে ভক্তরা। বেশ ক’জন হ্যাকার নিজেদের হ্যাকিংয়ের শিকার হওয়া তারকার ভক্ত হিসেবে দাবি করেছেন। তারা আইডি হ্যাক করে সেটির প্রাইভেসি মজবুত করে তারকাদের হাতে ফিরিয়েও দিয়েছেন।

কেউ কেউ আবার আরও একটি কাঠি সরেস। প্রিয় তারকাকে দিনের পর মেসেজ পাঠান ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট অ্যাকসেপ্ট করার জন্য। তারকা হয়তো নিজের ব্যস্ততায় সেই ভক্তের মেসেজটি দেখতেই পাননি। কিংবা দিনের পর দিন ভক্তের দেয়া মেসেজ ম্যাসেঞ্জারে আনসিন করে রেখেছেন। সেই অভিমান থেকেও অনেকে আইডি হ্যাক করছে।

অভিমান থেকে আইডি হ্যাক করে তারকার আইডি থেকে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট পাঠিয়ে বন্ধু হচ্ছে হ্যাকার। নিজের বান্ধবী ও বন্ধুদেরকেও তারকার আইডিতে যুক্ত করে তারকাকে ফোন করে ফিরিয়ে দিচ্ছে আইডি। সেইসঙ্গে মজবুত করে দিয়েছে আইডির নিরাপত্তা ব্যবস্থাও। এমনই এক মজার গল্প জানালেন চিত্রনায়ক ইমন। তিনি বলেন, ‘আমি ওই ভক্তের কান্ডে বিস্মিত। বলা যেতে পারে এটাও এক ধরনের ভালোবাসা। বিব্রতকর এবং ভয়ংকর ভালোবাসা। সে আইডি হ্যাক করে নিজের কাজ সেরে আইডিটি স্ট্রং করে আবার ফিরিয়েও দিয়েছে।’

আরও একটা উদাহরণ দেয়া যায় অভিনেত্রী সাবিলা নূরের আইডিটির ক্ষেত্রে। বেশ কয়েকবার হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছেন এই তরুণী। বারবার দেখা গেছে তার উপর কোনো না কোনো অভিমানে আইডি হ্যাক করেছে তারই কোনো ভক্ত। সর্বশেষ ২০১৮ সালের অক্টোবরে হ্যাকড হয় সাবিলার ফেসবুক আইডি।

পরে হ্যাকার থেকে দাবি করা হয়, ভক্তদের কমেন্টের রিপ্লাই দেন না সাবিলা, তাই আইডি হ্যাক করা হয়েছে! কী অদ্ভূত! তবে এইসব হ্যাকাররা দুশ্চিন্তার কারণ হলেও তারকাদের জন্য ক্ষতিকর নয়।

কিন্তু কেউ কেউ ভয়ানক ভোগান্তিতে পড়ছেন পেশাদার প্রতারক হ্যাকারদের আক্রমণে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফাঁদ পেতে থাকা এইসব হ্যাকাররা তারকাদের আইডি হ্যাক করে নানা তথ্য হাতিয়ে নিচ্ছেন। সেগুলো প্রকাশ করে দেয়ার হুমকি দিয়ে দিনের পর দিন তারকাদের জিম্মি করে অর্থ, উপহার আদায় করছেন। এরইমধ্যে বেশ ক’জন তারকাকে জিম্মি করা হ্যাকার আটক হয়েছে। তাদের আইনের মুখোমুখিও আনা হয়েছে।

সাইবার ক্রাইম ইউনিউটের সহায়াতায় হারিয়ে যাওয়া ফেসবুক আইডি ফেরত পেয়েছেন অনেক তারকা। তবে হ্যাকারদের আধিপত্য দমনে দেশের সাইবার ক্রাইম কর্তৃপক্ষ আরও শক্তিশালী ভূমিকা রাখবেন বলে প্রত্যাশা তারকাদের।