দেবরের সঙ্গে পরকীয়া, মর্মান্তিক পরিণতি

প্রকাশিত: ০৮ মে, ২০১৯ ০১:৪৪:১১

নতুন বউ। বাড়িতে সবাই উৎসবের আমেজে। এরই মধ্যে দেবরের সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন সেই নতুন বউ। কিন্তু কেউ ঘুণাক্ষরেও সেটা আঁচ করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত বিয়ের ১০ দিন যেতে না যেতেই ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করলো ভাবি ও দেবর!

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের জলপাইগুড়ির ধূপগুড়িতে। ভারতী গণমাধ্যমে খবর, আত্মঘাতী তরুণীর নাম মুক্তা পারভিন (১৮ বছর)। আত্মঘাতী যুবক আমির হোসেন তার-ই দেবর, বয়স ২২ বছর।

পরিবারিকভাবে জানা গেছে, দিন দশেক আগে পূর্ব মাগুরমারি এলাকার বাসিন্দা আমির হোসেনের সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল মুক্তা পারভিনের। বিয়ের পরই দেবরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিল মুক্তা। কিন্তু পরিবারের কেউই ঘুণাক্ষরে তা টের পায়নি। এরপরই এদিন এই ঘটনা। ভোটার কার্ড সঙ্গে নিয়ে ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দেয় যুগল। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় দু'জনের।

এই ঘটনার জেরে প্রায় আধঘণ্টা আটকে পড়ে গুয়াহাটি বেঙ্গালুরু এক্সপ্রেস। পরে রেল পুলিশ দেহ দুটি উদ্ধার করে। স্বাভাবিক হয় ট্রেন চলাচল। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশ জানিয়েছে, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরেই যুগল আত্মঘাতী হয়েছে বলে অনুমান। ঘটনার তদন্ত করছে রেল পুলিশ।।

প্রজন্মনিউজ২৪/মামুন

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন