আমরা এমন কেন?

প্রকাশিত: ২৯ মার্চ, ২০১৯ ০৬:১৬:৪৪

প্রজন্ম নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর বনানীর এফ আর টাওয়ারের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় ফায়ার সার্ভিস। উদ্ধার কাজে যোগ দেয় সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনী।

ঘটনাস্থলে দেখা যায়, উপস্থিত সাধারণ মানুষের কমতি নেই। শতো নয় হাজার হাজার লোকদের কেউ ছবি তুলছেন আবার কেউ ফেসবুকে লাইভ নিয়ে ব্যস্ত। এসব সাধারণের উপস্থিতি যে কাজের চেয়ে অকাজই বেশি হয় তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

ফায়ার সার্ভিসের লোকেরাই এসব লোকদের দায়ি করেছেন স্বাভাবিক কাজে ব্যঘাত ঘটানোর জন্য। এসব লোকদের মাঝে উপস্থিত একটি শিশু এখন সবার দৃষ্টিতে। অন্যান্যরা যখন ফেসবুক আর মোবাইল নিয়ে ব্যস্ত তখন শিশুটি ফায়ার সার্ভিসের পানি সরবরাহ লাইনে পলিথিন পেছিয়ে ফুটো বন্ধ রাখার চেষ্টা করছেন।

এ ঘটনায় প্রশংসায় ভাসছে শিশুটি। আবার অনেকে চেষ্টা করছেন টিভি লাইভে নিজকে একটু উপস্থান করার জন্য। বিশেষ বিশেষ সময়ে সাধারণ মানুষের মোবাইলের কথোপকথন ও অসঙ্গতি নিয়ে লিখেছেন ঢাকা মেট্টোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার হাফিজুর রহমান রিয়েল।

১. 'কাহা কই আপনে, আরে ধুর বাড়িত যান তাত্তাড়ি। ধাম কইরা টিভিটা অন করেন, আমি এহন বনানীতে। আগুন লাগছে। এই দ্যাহেন আমি রিপোর্টারের পেছনে পা চেগাইয়া খাড়াই আছি, দেখছেন?

এই যে লাল শার্ট পরা। হ হ ওই ডাই আমি'

২. 'বল বন্ধু। হ্যা আমি বনানীতে। আগুন লাগছে যেখানে ওইটার সামনেই আছিতো। আমার ওয়াল এ দ্যাখ কিছু ছবি পোস্টাইছি। নারে নেট খুব স্লো। লাইভ দিতে পারছিনা'

৩. 'ওইযে দ্যাখ, ক্যাবল বইয়া বইয়া নামতাছে লোকটা। সুন্দর কইরা ভিডিও কর। হালায় কিন্তু ক্যাবল ছিইড়া পইরা যাইবো মাস্ট। এ এ এ গেলোরে পইড়াই গেল। ভিডিও ককরছোস তো ঠিকঠাক। এই ভিডিওটাই দেখবি লাখ লাখ ভিউ হইবো বেডা'

এসব অমানবিকতা আর নিষ্ঠুর মানসিকতা কোথায় নিয়ে যাচ্ছে আমাদের?

আমরা এমন কেন?

কেন এরকম মানসিক বৈকল্য প্রতিনিয়ত পেয়ে বসে আমাদের?

এই অসুস্থ মানসিকতার শেষ কোথায়?

জাতি হিসেবে আমারা বীরের জাতি। আমাদের গর্ব করার মতো আছে অনেক কিছু। ইতোমধ্যে আমাদের উন্নয়ন, মাথাপিছু আয়, ক্রয়ক্ষমতা, অর্থনৈতিক সক্ষমতা, জীবনযাত্রার মান সব বেড়েছে সব।

কিন্তু,

বাড়েনি মানবিক গুণাবলী।

বাড়েনি কমনসেন্স।

বাড়েনি নাগরিক জ্ঞান।

বাড়েনি হিতাহিত জ্ঞান।

বাড়েনি শুদ্ধাচার।

আসুন নিজেদেরকে মূল্যায়ন করি। বিবেকবোধ জাগ্রত করি। মনুষ্যত্ব, মানবিকতা আর হিতাহিত জ্ঞান বাড়ানোর বড্ড প্রয়োজন আজ।

 

 

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ