মনোহরদীতে বাবার হাতে মেয়ে ধর্ষণ

প্রকাশিত: ২৯ মার্চ, ২০১৯ ০৩:৪০:৫৪

বাকি বিল্লাহ, নরসিংদী: নরসিংদীর মনোহরদীতে অষ্টম শ্রেনীতে পড়ুয়া নিজের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে শরীফ হোসেন(৩৭)নামের এক লম্পট বাবাকে পুলিশের কাছেসোপর্দ করেছে এলাকাবাসী।শরীফ হোসেন একদুয়ারিয়া গ্রামের আব্দুল আউয়ালের পুত্র এবং পেশায় একজন ভ্যান চালক।

বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার একদুয়ারিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।খবর পেয়ে রাতে পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এবং এ ঘটনায় ধর্ষণের স্বীকার কিশোরীর মা সেলিনা বাদী হয়ে মনোহরদী থানায় মামলা দায়ের করেন।

ধর্ষিতা ওই কিশোরীর মা সাংবাদিকদের জানান, প্রায় ১৭ বছর আগে তিনি শরীফের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।বিয়ের পর থেকেই তারা গাজীপুরের কালিগঞ্জ উপজেলার দেওপাড়া গ্রামে বাবার বাড়িতে থাকতেন। দাম্পত্য জীবনে তাদের এক মেয়ে (১৫) ও দশ বছরের এক ছেলে সন্তান রয়েছে।

প্রায় একবছর আগে বাড়ীতে কেউ না থাকা অবস্থায় সপ্তম শ্রেনীতে পড়–য়া কিশোরী মেয়েকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে তার স্বামী ধর্ষণ করে।ভয়ে মেয়েটি এ ঘটনা সম্পর্কে কাউকে জানায়নি।কিছুদিন পরই একই কায়দায় আবারো তাকে ধর্ষন করা হয়।

এভাবে কয়েকদিন একই ঘটনার পনরাবৃত্তি হতে থাকলে মেয়েটি তার মাকে তার সাথে ঘটে যাওয়া বাবার কু-কর্মের ঘটনা খুলে বলে।লোক লজ্জার ভয়ে তিনিও এ বিষয়ে কাউকে জানাননি।দিন-দিন স্বামী শরীফ আরো বেপোরোয়া হয়ে পড়লে আশপাশের লোকজনও এই নেক্কারজনক ঘটনা সম্পর্কে জেনে যায়।

পরে এলাকাবাসী তাদেরকে এলাকা থেকে বের করে দেন।এরপরই (তিনমাস পূর্বে) শরীফের নিজবাড়ী মনোহরদী উপজেলার একদুয়ারিয়া গ্রামে বসবাস করতে থাকেন।সেখানে স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ে অষ্টম শ্রেনীতে মেয়েকে এবং ছেলেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেনীতে ভর্তি করান।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে কোন এক সময় কিশোরী মেয়েটি গোসল করতে যায়। এসময় বাবা শরীফ হোসেন তার মেয়েকে দেখে গোসলখানায় প্রবেশ করে জোড়পূর্বক ধর্ষণ করে।সে সময় কিশোরীর মা বাড়ীর বাইরে ছিলেন।সন্ধার দিকে বাড়ীতে এলে কিশোরী তার মাকে ঘটনা খুলে বলে।

এ সময় কিশোরীর মা আশপাশের কয়েকজনকে ঘটনা সম্পর্কে অবহিত করেন।পরে আস্তে আস্তে পুরো এলাকায় ঘটনাটি জানাজানি হয়ে পড়লে এলাকাবাসী মিলে শরীফ হোসেনকে আটক মনোহরদী থানায় খবর দেন।পরে রাতেই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ধর্ষণের অভিযোগে শরীফ হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

মনোহরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান জানান, ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।কিশোরীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।ধর্ষক শরীফ হোসেনকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

প্রজন্মনিউজ২৪/মামুন/

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ














ব্রেকিং নিউজ