রাজনীতি বোঝেন প্রশ্নে যা বললেন নুসরাত

প্রকাশিত: ১৪ মার্চ, ২০১৯ ০৫:১৯:২১

ভারতে চলছে নির্বাচনের ডামাডোল। পছন্দের দলের প্রার্থী হতে মরিয়া দেশটির রাজনৈতিক ব্যক্তিরা।নির্বাচনের হাওয়া লেগেছে টালিউডেও। তৃণমুল কংগ্রেসের জন্য টালিউড সুন্দরী নুসরাত জাহানকে পছন্দ করেছেন দলের প্রধান মমতা ব্যানার্জি।বলা যায় রাজনীতিতে নাম লিখেছেন এই টালিউড চিত্রনায়িকা। পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট কেন্দ্র থেকে তৃণমুল কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছেন এই তারকা।

রুপালী পর্দায় বেশ সফল নুসরাত। তবে ভোটের রাজনীতিতে তিনি সফল হবেন কি? এমন প্রশ্ন চলছে ভক্তদের মাঝে।রাজনীতি কতটুকুই বা বোঝেন নুসরাত, তার কি সিনেমার ক্যারিয়ার শেষ হয়ে গেছে? এমন কথা চর্চা হচ্ছে সিনেমহলে।রাজনীতিতে নেমে গিয়ে সিনেমাটা ঠিক করে উঠতে পারবেন কি-না সে কথাও জিজ্ঞেস করা হয়েছে তাকে।

এবার নুসরাত নিজেই সেসব জল্পনার অবসান ঘটালেন। জানালেন রাজনীতি বিষয়ে তার দক্ষতা কতটুকু।এ বিষয়ে নুসরাতের সাহসী উত্তর, ‘ রাজনীতি! বাড়ির কাজের মতোই আর একটা কাজ’।মঙ্গলবার (১৩ মার্চ) উত্তর ২৪ পরগনার বসিরহাট লোকসভা আসনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণার পরে এমনটাই বলেন নুসরাত।

নুসরাত বলেন, ‘আমার মনে হয় মানুষের জন্য কাজ করার সময় এসেছে। এতোদিন বাড়ি সামলানো ও সিনেমার শুটিং এই দুটো কাজ নিয়েই দিন পার করতাম। এখন সঙ্গে রাজনীতি যোগ হলো আর কী।তিনটা কাজ একসঙ্গে চালিয়ে নিতে পারবেন নুসরাত?জবাবে এই টালি সুন্দরী বলেন, একসঙ্গে সামলানো কিছুটা কঠিন হয়, কিন্তু অসম্ভব নয়।

তিনি আরও বলেন, রাজনীতির জন্য আমার সিনেমার ক্যারিয়ার কোনোভাবেই ক্ষতিগ্রস্ত হবে না। সেদিকে খেয়াল রেখেই দুটি দায়িত্ব পালন করে যাব।নুসরতের মতে, ‘মানুষ এতদিন আমার অভিনয় ভালোবেসেছেন। এবার জনপ্রতিনিধি হিসেবে তাদের সেই ভালোবাসা ফিরিয়ে দিতে আমি একটা সুযোগ পেয়েছি।

চিত্রনায়িকা হিসেবে নুসরাত যেমন ভক্তদের অনেক ভালোবাসা পেয়েছেন, ঠিক একইভাবে রাজনীতির মাঠেও জনগণকে পাশে চান তিনি।এবার ভারতের লোকসভা নির্বাচনে শুধু নুসরাতই নয় টালি অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীও তৃণমূলের প্রার্থী তালিকায় রয়েছেন।

প্রজন্মনিউজ২৪/মামুন

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ