কুয়াকাটা সৈকতে হানিফ সংকেত ও ইত্যাদি

প্রকাশিত: ১২ মার্চ, ২০১৯ ০৪:৩৬:৩২

 ‘ইত্যাদি’র এবারের পর্ব ধারণ করা হয়েছে আগুনমুখা, পায়রা ও লোহাদিয়া নদী বিধৌত পটুয়াখালী জেলার নৈসর্গিক লীলাভূমি সাগরকন্যা কুয়াকাটায়।

১৮ কিলোমিটার দীর্ঘ এই সৈকত দেশের অন্যতম নৈসর্গিক স্থান। ভৌগলিক অবস্থানের কারণে কেবলমাত্র এই সৈকত থেকে সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের দৃশ্য উপভোগ করা যায়।  বাংলাদেশের যখন যে স্থানে ‌‘ইত্যাদি’ ধারণ করা হয় সেই স্থানটির বৈশিষ্ট্যকে কেন্দ্র করেই সেট নির্মাণ করা হয়। এবারও তাই করা হয়েছে। পেছনে সমুদ্র রেখে সেটের দু’পাশে অর্ধশতাধিক মাছ ধরার নৌকা রেখে বানানো হয়েছে দৃষ্টিনন্দন সেট। কুয়াকাটার ঐতিহ্যের সঙ্গে সাদৃশ্য রেখে নির্মাণ করা আলোকিত এই মঞ্চের সামনে হাজার হাজার দর্শকের উপস্থিতিতে ধারণ করা হয় এবারের পর্ব।

তিনি আরও জানান, কুয়াটা সৈকতের আশেপাশে তেমন কোনও জনবসতি না থাকলেও শুটিং শুরুর আগেই অনুষ্ঠানস্থল কানায় কানায় ভরে যায়। আমন্ত্রিত দর্শক ছাড়াও হাজার হাজার মানুষ আশেপাশের রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে মন্ত্রমুগ্ধের মতো উপভোগ করেছেন ‘ইত্যাদি’র নান্দনিক সব পর্ব।

এই পর্ব একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে প্রচার হবে ২৯ মার্চ, শুক্রবার রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর।

‘ইত্যাদি’ রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ হয়েছে ফাগুন অডিও ভিশনের ব্যানারে। স্পন্সর করেছে যথারীতি কেয়া কস্মেটিকস্ লিমিটেড।

প্রজন্মনিউজ২৪/দেলাওয়ার হোসাইন।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ