সমতার আধিকারে পিছিয়ে নেই নারীরা

প্রকাশিত: ০৮ মার্চ, ২০১৯ ১২:৪১:২৬ || পরিবর্তিত: ০৮ মার্চ, ২০১৯ ১২:৪১:২৬

এখনই সময় এগিয়ে যাওয়ার। পিছনের সকল গ্লানি ভুলে দিপ্ত কন্ঠে আওয়াজ তোলার সময় এখনই,যাই এগিয়ে বহুদূর। আজ (৮মার্চ) বিশ্ব নারী দিবস, সম-আধিকার আদায়ের উজ্জ্বল একটা দিন। ভাবনার হীনমন্যতা দূর করে, চৌকস দৃষ্টিভঙ্গই আজ নারীর সমান আধিকারের মূল হাতিয়ার।

সকল প্রকার বৈষম্যমূল আচরণের মধ্য আজ নারীরা উল্লেখযোগ্য আবদান রাখছে। এগিয়ে যাচ্ছে সমাজ, এগিয়ে যাচ্ছে দেশ। পরিবর্তন হচ্ছে মানুষের দৃষ্টিভঙ্গি, ভাবতে শিখেছে নতুন দিগন্তের। নারিদের এগিয়ে চলার পথটি মোটেই সহজ ছিলনা। নানা লাঞ্চনা-ব্যঞ্জনার মধ্য দিয়ে এগিয়ে যেতে হয়েছে আমাদের দেশের নারী সমাজকে। স্বাধীনতার ৪৮ বছরে এগিয়েছে দেশ বেড়েছে দেশের জিডিপির হার। দেশেল এ সাফল্য কারো একার  নয়,রয়েছে নারীদের উল্লেখ যোগ্য অংশগ্রহণ।

একসময় মনেকরা হত পরিবারের কাজই মেয়েদের। সমাজে ঘরকোন করার সভাব বহুদিনের। ধর্মের  দোহাই দিয়ে রাথা হত কোনঠাসা করে । নারীদের প্রতি একটা নিচু দৃষ্টিঙ্গই এর মূল করণ। সময়গড়িয়ে আজ তারা ঘর থেকে বেরিয়ে কর্মক্ষেত্রে যোগ্য হয়ে উঠেছে। পেয়েছে নিজেদের উপযুক্ত সন্মান।

মানুষ থেকে মানুষ হয়ে উঠার প্রচেষ্টা বহুদিনের। যুগের পর যুগ নিজেদের আধিকার থেকে বঞ্চিত মানুষগুলো নিরব ছিলনা। তারই প্রমাণ বেগম রোকেয়া, সমাজ থেকে বৈষম্য দূর করতে প্রতিবাদেরর ভাষা ছিল নারী সমাজকে শিক্ষিত করে তোলা, নিজেদের আধিকার সম্পর্কে সচেতন করে তোলা।

বিশ্ব নারী দিবসের উৎপত্তি নিউইয়র্কে। ১৯০৮ সালে শ্রমজীবী নারীরা নিউইর্কের পথে নেমেছিলেন। ১৯০৯ সালে জার্মন সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি নেত্রেী ক্লারা জেটকিন প্রস্তাব দেন একটি দিন হোক নারীদের অধিকার আদায়ের দিন। ১৯৭৫ সালে জাতিসংঙ্গ ৮ মার্চকে আন্তর্জাতিক নারী দিবস গোষণা করে।

দেশের চলমান আগ্রজাত্রাতে অক্ষুণ্য রাখতে হলে, আজই আমাদের শপথ নিতে হবে, আর কোন বৈষম্য নয়। তাইতো সাবার আগে আমাদের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন করা জরুরি। সমতার জন্য পুরুষদের সহায়তা ও সমর্থন বেশি প্রয়োজন। নারীদের কর্মক্ষেত্রর পরিবেশ নিশ্চিত করা। পরিবারের কাজে পুরুষের আরও অংশগ্রহণ । অফিসে নিরাপদ পরিবেশ  তৈরি করতে হবে। রাস্তার পাশে প্রয়োজনীয় সংখ্যক পাবলিক টয়লেটের ব্যবস্থা করা। প্রতিষ্ঠানে যৌন হয়রানি রোধের ব্যবস্থা করা। নারীদের জন্য আলাদা ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করা এবং নারী উদ্যোক্তা বাড়াতে হবে।

প্রজন্মিনিউজ২৪/দেলাওয়ার হোসাইন।

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন