স্বাস্থ্য অধিদফতরে নিয়োগ

আজ থেকে চাকরি প্রার্থীদের লাগাতার আন্দোলন   

প্রকাশিত: ২৮ জানুয়ারী, ২০১৯ ১২:০৮:২১ || পরিবর্তিত: ২৮ জানুয়ারী, ২০১৯ ১২:০৮:২১

আজ থেকে আন্দোলনে যাচ্ছে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অধীনস্থ ৯টি জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা সম্পন্নকারী চাকরি প্রার্থীরা।প্রায় ৬ বছর আগে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা সম্পন্ন হলেও নিয়োগ সম্পন্ন না হওয়ায় তারা আন্দোলন কর্মসূচি ঘোষণা করেছেন।ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ সকাল ৯টা থেকে রাজধানীর মহাখালীতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সামনে তারা লাগাতার অবস্থান গ্রহণ করবেন।

রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কর্মসূচির ঘোষণা দেন নিয়োগ বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি খাইরুল হক।সংশ্লিষ্টরা জানান, ২০১২ সালের ২২ নভেম্বর বিভিন্ন গণমাধ্যমে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অধীনে ১১টি জেলায় তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর প্রায় ৯১টি শূন্য পদের বিপরীতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়।নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির পরিপ্রেক্ষিতে অসংখ্য আবেদনপত্র জমা পড়ে।২০১৩ সালের ২৬ এপ্রিল ৯টি জেলায় লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

একই বছরের ২৫ জুন অধিদফতরের ওয়েবসাইটে লিখিত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ হয় এবং ২০১৩ সালের ১৯-২০ আগস্ট লিখিত পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু এ সময় লিখিত পরীক্ষায় স্বজনপ্রীতির অভিযোগে একটি রিট পিটিশন দায়ের করা হলে আদালত শুনানি শেষে কিছু অবজারভেশন দিয়ে মামলা খারিজ করে দেয়।এরপর স্বাস্থ্য অধিদফতর নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পন্ন না করে পুনঃনিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করলে মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের পক্ষ থেকে তিনটি রিট মামলা দায়ের করা হয়।

যার পরিপ্রেক্ষিতে আদালত পুনঃনিয়োগ বিজ্ঞপ্তি বাতিল করে এবং মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্য থেকে নিয়মানুসারে নিয়োগ সম্পন্ন করার নির্দেশ দেয়। কিন্তু এরপরেও অধিদফতর নিয়োগ সম্পন্ন করায় গড়িমসি করলে বিষয়টি আদালত পর্যন্ত গড়ায়।এরপর ২০১৫ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর নিয়োগ সম্পন্ন করতে আদালত বরাবর ৪৫ দিন সময় প্রার্থনা করে। আইনগত এই জটিলতা আপিল বিভাগ এবং রিভিউসহ ৩ বছর অতিবাহিত হয়।

এরপর ২০১৮ সালের ২১ মে স্বাস্থ্য অধিদফতর দ্রুত নিয়োগ সম্পন্ন করতে নির্দেশ দেয়। কিন্তু তারপর ৮ মাস পেরিয়ে গেলেও এখনও অধিদফতরের পক্ষ থেকে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।ইতিমধ্যে চাকরিপ্রার্থীদের জীবন থেকে হারিয়ে গেছে ৭টি মূল্যবান বছর। তাই নিয়োগ সম্পন্ন করার দাবিতে মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী ২ হাজার ৭৩৩ জন আজ থেকে লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি চালিয়ে যাবে বলে নিশ্চিত করেছে।

প্রজন্মনিউজ২৪/ওসমান

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন