ভাঁজ করা স্মার্টফোন বাজারে আনছে শাওমি

প্রকাশিত: ২৭ জানুয়ারী, ২০১৯ ০১:১০:০৫

প্রয়োজন হলে হাতের স্মার্টফোনটির ভাঁজ খুলে ট্যাবলেটে রূপান্তরিত করা যায়, আবার ডিসপ্লের দুইপাশের অংশ পেছনে ফোল্ড করে পুনরায় ফোন হিসেবেও ব্যবহার করা যায়। এমনই আশ্চর্য ফোন উন্মোচন করার কথা জানিয়েছে চীনের স্মার্টফোন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান শাওমি। খবর বিবিসি বাংলার

চীনা প্রযুক্তি সংস্থা সোশ্যাল মিডিয়া সাইট ওয়েইবোতে দেয়া একটি পোস্টে কোম্পানিটি প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যে, ডাবল ভাঁজ করা ডিভাইসটি শিগগিরই বাজারে আসছে এবং সাধারণ মানুষকে এর নাম ঠিক করার ব্যাপারে সাহায্য করার জন্য আহ্বানও করা হয়েছে।

যদিও স্যামসাং এবং স্টার্ট-আপ রয়্যাল আগেই তাদের নিজস্ব নমনীয়-স্ক্রিনযুক্ত ফোন উন্মোচন করেছিল। কিন্তু তাদের ফোনগুলো শুধু একবার ফোল্ড করা যায়। পরামর্শক প্রতিষ্ঠান সিসিএস ইনসাইটের বেন উড বলেছেন, এটি খুবই মজার যে শাওমি তাদের ফোনের প্রোটোটাইপে তিনটি উপায়ে ভাঁজ করার পদ্ধতি বের করতে পেরেছে।

তবে সাধারণত ফোনের যে অংশে ভাজটা পড়ে যেখানে সমস্যার আশঙ্কা বেশি থাকে বলেও জানিয়েছেন বেন উড।

ধারণা করা হচ্ছে, ফোল্ডেবল স্ক্রিনের এই ধারণা স্মার্টফোন প্রস্ততকারকদের তাদের ফোনগুলোকে অন্য ফোনগুলোর চাইতে আলাদা করতে সহায়তা করবে। এ কারণে নতুন প্রযুক্তি সম্বলিত এই স্মার্টফোনটি যথেষ্ট ব্যয়বহুল হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ফোল্ডিং ডিসপ্লেগুলো পরবর্তী প্রজন্মের স্মার্ট ডিভাইসের নতুন সূচনা করবে বলে মনে করেন উড। তিনি বলেন, ‘এই ভাজ করা ট্যাবলেটসহ একটি স্মার্টফোন যে গ্যাজেটপ্রেমীদের চুম্বকের মতো টানব তাতে কোনো সন্দেহ নেই।’

তবে ফোনটিকে রক্ষায় এর কেসের ডিজাইনটি কেমন হতে পারে সেটা নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন কেস উৎপাদকরা।

এদিকে চীনা স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে জানিয়েছে, চলতি বছরেই তারা একটি ফোল্ড-আউট স্ক্রিনের ফোন বের করতে যাচ্ছে। তবে এ ধরনের ঘোষণা আরও আগে দিয়েছে স্যামসাং। তাদের গ্যালাক্সি এক্স ফোনে এই প্রযুক্তি সংযোজনের পরিকল্পনা রয়েছে। গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে স্যামসাং এই ফোন সেটের ব্যাপারে জানালেও সামনে এ নিয়ে আরও বিস্তারিত খোলাসা করার কথা বলেছে প্রতিষ্ঠানটি।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন