ভাসমান সমুদ্র সৈকত

প্রকাশিত: ২০ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৫:৩৬:০৫ || পরিবর্তিত: ২০ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৫:৩৬:০৫

ভ্রমণ করতে কার না ভালো লাগে। আর তা যদি হয় নিরিবিলি সবুজে ঘেরা কোন সমুদ্রেরতীরে তাহলে তো কথাই নেই। কারণ সব ভ্রমণ পিপাসুদের প্রথম পছন্দই হলো দ্বীপ বা সমুদ্র।

আর তা যদি হয় সমুদ্রের মাঝে ভাসমান। তাই ভ্রমণ পিপাসু মানুষদের আনন্দকে আরো একটু বাড়িয়ে দিতেই নরওয়ের বিখ্যাত ইন্টিরিয়র ডিজাইন সংস্থা ‘হেরেড ডিজাইন’তৈরি করেছে ১০৮ এম নামের একটি প্রমোদতরী। যাত্রীদের বিনোদনের জন্য এই প্রমোদতরী বা বিলাশবহুল জাহাজে থাকছে সুইমিং পুল, বাগান, পানশালা, রেস্তোরাঁ, রাজকীয় স্যুট, হেলিপ্যাড আর থাকছে বিনোদনের জন্য আস্ত একটা সমুদ্র সৈকত বা সী বিচ।

বিলাশবহুল এই প্রমোদতরীটি লম্বায় ১০৮ মিটার (প্রায় ৩৫৪ ফুট)। এই প্রমোদতরীটিতে কৃত্তিম সমুদ্র সৈকত বা সী বিচের সঙ্গে যে কোনো সাধারণ বিচের পার্থক্য হলো এটি মাঝ সমুদ্রে ভাসমান। বিচটি তৈরি করার জন্য জাহাজের পিছন দিকটা নিচু করে সমুদ্রের পানির সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া হয়েছে।

প্রমোদতরীতে বিনোদনের জন্য শক্তি যোগাবে ৩ হাজার বর্গফুটের সোলার প্যানেল। আর এর দোতলায় রয়েছে একটি খোলামেলা সাজানো বাগান, একটি সুইমিং পুল। এছাড়া এই তরীতে যাত্রীদের স্বাচ্ছন্দের জন্য কাঁচে মোড়া বিশাল মাপের একটি হল ঘর আছে আর সেই হল ঘরে রয়েছে পানশালা, রেস্তোরাঁর মতো একাধিক আয়োজন। এছাড়া  একটি হেলিপ্যাডও রয়েছে।

প্রজন্মনিউজ২৪/আব্দুল কাইয়ুম

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ