মাদক নিরাময় কেন্দ্রে পিটিয়ে হত্যা করা হয় এক যুবককে  

প্রকাশিত: ০৭ জানুয়ারী, ২০১৯ ০৩:৩৪:৫৩

মাদক নিরাময় কেন্দ্রে থেকে এক যুবককের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে । অভিযোগ উঠেছে যুবকটিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। যুবকটি সেখানে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

গতকাল রোববার রাতে উদ্দীপন মৌলভীবাজারের মাদক নিরাময় কেন্দ্র থেকে ওই যুবকের লাশ উদ্ধার করেন তাঁর স্বজনরা। যুবকের নাম জালাল উদ্দিন। ওই নিরাময় কেন্দ্রের অ্যাম্বুলেন্সে পড়ে ছিল জালালের লাশ। জালাল ব্রিটিশ বংশোদ্ভূত বাংলাদেশি বলে জানা যায়। তাঁর শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাতে চিহ্ন আছে।

পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার তফতিবাগ এলাকার গিয়াস উদ্দিনের ছেলে জালাল উদ্দিন সাত থেকে আট মাস আগে দেশে আসেন। মাদকাসক্ত থাকায় তাঁকে উদ্দীপন মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তি করে দুই সপ্তাহ চিকিৎসা শেষে গত ২৪ ডিসেম্বর বাড়ি নেওয়া হয়। পরে আবার ২৯ ডিসেম্বর ভর্তি করা হয় ওই নিরাময় কেন্দ্রে।

নিহতের মা রুকসানা আক্তার জানান, গতকাল রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ফোনে মাদক নিরাময় কেন্দ্র থেকে জানানো হয়, জালাল অসুস্থ হয়ে পড়েছে, তাঁকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হচ্ছে। এ খবরে তাঁরা দ্রুত সিলেট যান এবং হাসপাতালে খোঁজাখুঁজি করে জালালকে পাননি। পরে মৌলভীবাজার এসে উদ্দীপন মাদক নিরাময় কেন্দ্রের সামনে একটি অ্যাম্বুলেন্সের ভেতর তাঁর মৃতদেহ দেখতে পান। এ সময় নিরাময় কেন্দ্রের কাউকে তাঁরা খুঁজে পাননি।

নিহত জালাল দুই ভাই ও তিন বোনের মধ্যে সবার বড় ছিলেন। রাব্বি নামের পাঁচ বছর বয়সী তাঁর একটি ছেলে আছে। তাঁর স্ত্রী-সন্তান দেশে থাকতেন। পরিবারের সদস্য ও স্বজনরা জানিয়েছেন, তাঁরা এই হত্যার ঘটনায় ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। খবর পেয়ে মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়।

মৌলভীবাজার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) তাপস জানান, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে বোঝা যাবে প্রকৃত ঘটনা।

এ বিষয়ে জানতে উদ্দীপন মাদক নিরাময় কেন্দ্র কর্তৃপক্ষের কাউকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাঁদের অনেকের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলেও তাঁরা ধরেননি। ঘটনার পর থেকে তাঁরা পলাতক।

প্রজন্মনিউজ২৪/আব্দুল কাইয়ুম

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ