সেনাবাহিনী দিয়ে দেশের অবস্থার উন্নতি নাও হতে পারে

প্রকাশিত: ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৪:৩৪:০৪

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও রাষ্ট্রচিন্তাবিদ আবুল কাসেম ফজলুল হক মনে করেন দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি আরো খারাপ হলে নির্বাচন হবে না  । তিনি আরো বলেছেন, ‘অস্বাভাবিক রাজনীতির কারণে মাঠে সেনাবাহিনী নেমেছে । তবে সেনাবাহিনী দিয়ে যে অবস্থার উন্নতি হবে আমার কাছে তা মনে হয় না। যেমন চলছে, তেমনই চলবে। পরিস্থিতি আরো খারাপ হলে নির্বাচন হবে না । এই নির্বাচন পণ্ড হয়ে যাবে ।’

 তিনি বলেন, ‘আমাদের রাজনীতি অস্বাভাবিক । এর মধ্যেই এখন নির্বাচন হচ্ছে । এখানে আওয়ামী লীগ অত্যন্ত প্রবল এবং তাদের কাজকর্ম খুব প্রবল । ফলে ঐক্যফ্রন্ট এবং বিএনপি মাঠে প্রচারণায় অংশ নিতে পারছে না । মামলা- মোকদ্দমাসহ নানাভাবে তাদের ওপর আক্রমণ হচ্ছে । জুলুম জবরদস্তির অন্ত নেই। এই অবস্থার মধ্যদিয়ে নির্বাচনে প্রার্থীরা অগ্রসর হচ্ছে ।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের রাজনীতি দুর্বল বলেই বিদেশি পর্যবেক্ষক এদেশে আসেন এবং কোনো কোনো রাজনৈতিক দল আহ্বান করেন। সরকারও বাধ্য হয় তাদের অনুমোদন দিতে । এ বছর সরকার বিদেশিদের অনুমোদনে নানা বাধা-বাধ্যকতা সৃষ্টি করলেও তারপরও অনুমোদন দিচ্ছেন। যখন বিদেশি মতামত প্রাধান্য বিস্তার করে তখন পরিস্থিতি অস্বাভাবিক হয়ে ওঠে। ভেতরে ভেতরে শক্তি প্রয়োগ তো আছেই ।’

নির্বাচন কেমন দেখছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘নানা অভিযোগে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের নামে মামলা দেয়া ও গ্রেপ্তার করে জেলে বন্দি রাখা এখন পর্যন্ত কমেনি। অনেক লোক নির্বাচনের ফলাফলও মনে করে ক্ষমতাসীন দলের পক্ষেই যাবে । আমরা চাই শান্তিপূর্ণ, নিরপেক্ষ এবং সুষ্ঠু নির্বাচন। আর তার ব্যত্যয় ঘটলে জাতীয় নির্বাচনে যেমন ক্ষতি হবে। আবার যারা জিতবে তারাও শেষ পর্যন্ত ক্ষতিগ্রস্ত হবে ।’

প্রজন্মনিউজ২৪/আব্দুল কাইয়ুম

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন