৭ কারণে বিয়ের পর ওজন বাড়ে

প্রকাশিত: ২২ নভেম্বর, ২০১৮ ১১:৪৬:৪৬

বিয়ের পর প্রতিটি মানুষের স্বাস্থ্যগত কিছু পরিবর্তন দেখা দেয়। এ সময় নারী-পুরুষ উভয়েরই ওজন বাড়ে। আবার কখনও নারীর বাড়ে, কিন্তু পুরুষের ওজন ঠিকই থাকে।বিয়ে কিংবা সম্পর্কে জড়ালে ওজন কেন বাড়ে? এ প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকরা একটি জরিপ চালিয়েছেন।জরিপের নমুনায়ন হিসেবে দুই হাজার মানুষকে বিভিন্ন প্রশ্ন করা হয়।

ওই জরিপে দেখা গেছে, জরিপে অংশ নেয়া নারী-পুরুষের ৭৯ শতাংশেরই ১৬ কেজির মতো ওজন বেড়েছে সম্পর্ক শুরুর পর।এ ওজনটাকে বলা হচ্ছে- ‘লাভ ওয়েট’ বা ‘ভালোবাসার ওজন’। সম্পর্কের প্রথম বছরেই এ ওজন বাড়তে দেখা যায় তাদের।জরিপে দেখা গেছে, নারীর চেয়ে পুরুষের ওজন বিয়ের পর বেশি বাড়ে। জরিপে অংশ নেয়া ৬৯ শতাংশ পুরুষের ও ৪৫ শতাংশ নারীর ওজন বেড়েছে।

জরিপে অংশ নেয়া ৫৭ শতাংশ মানুষ জানান, বিয়ের প্রথম বছরে গড়ে ৭ দশমিক ৭ কেজি ওজন বাড়ে তাদের। এ ক্ষেত্রে নারীর তুলনায় পুরুষের ওজন বেশি বাড়ে।বিয়ের পর বেশিরভাগ দম্পতি বাচ্চা নেন এবং শরীরের প্রতি তেমন মনোযোগ দেন না- এ কারণে ওজন বাড়ে। বিয়ের সময়টায় ও পরে বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে ভারী খাবার খাওয়া হয়। এ ফলে ওজন বাড়তে পারে।

গবেষকরা জানান, প্রেম কিংবা সম্পর্কে জড়ানোর পর জুটি বাইরে আড্ডার সময় অনেক বেশি খাবার খাওয়া হয়। অনেকে মুখরোচক কিংবা রিচ ফুডও বেশি খান। এ কারণেই ওজন বেড়ে যায়।অনেকেই দাবি করেন, প্রেমের পর তাদের মনে হয়, মনের মানুষ পেয়ে গেছেন, এখন ওজন কমানোর কষ্ট না করলেও চলবে।জরিপে নেয়া ব্যক্তিদের উত্তর থেকে বিয়ের পর কিংবা সম্পর্কে জড়ানোর পর ওজন বৃদ্ধির সাতটি কারণ বেছে নিয়েছেন গবেষকরা। সেগুলো নিম্নরূপ-

১. হরমোন পরিবর্তন

২. বেড়াতে গিয়ে ও কিংবা দাওয়াতে গিয়ে বেশি করে রিচ ফুড খাওয়া।

৩. সুখ সঙ্গী হওয়ায় ওজন নিয়ে চিন্তা না করা।

৪. কর্মক্ষেত্রে কাজের চাপে জীবনযাপন এলোমেলো হয়ে যাওয়া।

৫. পর্যাপ্ত ঘুমের অভাব।

৬. সম্পর্কে টানাপড়েন হলেও প্রেমিক স্বাস্থ্যের প্রতি বেখেয়াল হয়ে পড়ে, এতে ওজন বাড়ে।

৭) বিয়ের পর বিশেষ সম্পর্কের পর খাবারের চাহিদা বেড়ে যাওয়া। সূত্র: আইএফএলসায়েন্স।

প্রজন্মনিউজ২৪/ওসমান

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ