সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা প্রয়োজন

প্রকাশিত: ০৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০৩:৩৪:১০

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, সংসদীয় গণতন্ত্রচর্চার কেন্দ্রবিন্দু জাতীয় সংসদ। তাই জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জনগণের আস্থা অর্জন জরুরি। অবাধ, সুষ্ঠু ও অন্তর্ভুক্তিমূলক নির্বাচন হচ্ছে গণতন্ত্রের মূল ভিত্তি। অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা প্রতিষ্ঠা অন্যতম প্রধান শর্ত।

আজ বুধবার রাজধানীর রেডিসন ব্লু হোটেলে ফোরাম অব ইলেকশন ম্যানেজমেন্ট বডিস অব সাউথ এশিয়ার (ফেমবোসা) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্পিকার এসব কথা বলেন। সংসদ সচিবালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

দক্ষিণ এশিয়ার আটটি দেশের নির্বাচন কমিশনগুলোর সংগঠন ফেমবোসার দুই দিনব্যাপী সম্মেলন আজ ঢাকায় শুরু হয়। এটি হচ্ছে সংগঠনটির নবম সম্মেলন।

স্পিকার বলেন, সংবিধান অনুযায়ী সব ক্ষমতার মালিক জনগণ। সে কারণে জনগণের আস্থা অর্জনের জন্য নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় কারিগরি উদ্ভাবনী, ওয়েবসাইট ডিজাইন, নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইত্যাদি বিষয়ে আলোকপাত করার জন্য গুরুত্বারোপ করেন স্পিকার। তিনি বলেন, বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচন খুব কাছে। ইতিমধ্যে নির্বাচন কমিশন স্মার্ট কার্ডসহ নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করছে। ফেমবোসার এ ধরনের সম্মেলন দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মাঝে অভিজ্ঞতা বিনিময় এবং পারস্পরিক জ্ঞান লাভে সক্রিয় ভূমিকা রাখবে। এর মাধ্যমে গণতন্ত্র আরও শক্তিশালী হবে। নির্বাচন প্রক্রিয়ায় বিশ্বাসযোগ্যতা ও আস্থা আনতে ফেমবোসা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

অনুষ্ঠানে আফগানিস্তানের নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান ও ফেমবোসার বর্তমান চেয়ারম্যান গোলাজান এ. বাদি সাইদ এবং বাংলাদেশের প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা বক্তব্য দেন। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম। স্বাগত বক্তব্য দেন নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নেপালের প্রধান নির্বাচন কমিশনার আইয়োদী প্রাশাদ জাদেভ, শ্রীলঙ্কার নির্বাচন কমিশন চেয়ারম্যান মাহিন্দ্রা দেশাপ্রিয়া, ভারতের নির্বাচন কমিশনার অশোক লাভাসা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

প্রজন্মনিউজ২৪/নাজমুল

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন





ব্রেকিং নিউজ