বাগেরহাট -৩ উপনির্বাচনে মনোনয়ন পেলেন খালেকের স্ত্রী

প্রকাশিত: ২২ মে, ২০১৮ ১২:২২:৫০

খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সদ্য শেষ হয়েছে।এই নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে লড়াই করে বিজয়ী হয়েছেন,বাগেরহাট -৩ আসনের সাবেক এমপি তালুকদার আব্দুল খালেক। খুলনা  সিটি নির্বাচনের উদ্দেশ্যে তিনি ওই আসন থেকে সরে আসেন।ফলে নির্বাচন কমিশন বাগেরহাট -৩ আসনটি ফাঁকা দেখিয়ে সিটি নির্বাচনের তারিখ ঘোষনা করে।

এদিকে আগামী ২৬ জুন এই আসনে নির্বাচনী তফসিল ঘোষনা করেছে নির্বাচন কমিশন। গত সোমবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন,,গণভবনে আওয়ামী লীগের সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের এক সভায় খালকের পত্নী(হাবিবুন নাহার) দলের প্রার্থী করা হয়।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরতি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। হাবিবুন নাহার ২০০৮ সালরে ২৯ ডিসেম্বর জাতীয় নির্বাচনে এই আসন থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তখন খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র ছিলেন খালেক।

তবে ২০১৩ সালে খুলনায় ভোটে হারার পর খালেককে ২০১৪ সালরে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে বাগরেহাট-৩ আসন থেকে প্রার্থী হয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এর আগেও তিনি এই আসন থেকে নির্বাচনে করে ভোটে জিতেন। বাগেরহাট-৩ আসনের সংসদ সদস্য পদ ছেড়ে খুলনায় ভোটে অংশ নেয়ার পর নির্বাচনে কমিশন সংসদীয় আসনটি ফাঁকা ঘোষণা করে উপনির্বাচনের তারিখ দেয় ।

আওয়ামী লীগ খুলনায় খালেককে মনোনয়ন দেয়ার আগেই তার ছেড়ে দেওয়া আসনে স্ত্রীকে নৌকা প্রতীক দেওয়ার বিষয় নিশ্চিত ছিল। তারপরও এই উপনির্বাচনে প্রার্থী হতে আগ্রহীদের কাছে আওয়ামী লীগ ১৯, ২০ ও ২১ মে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করে।

আর খালকে পত্নী হাবিবুন নাহার ছাড়াও চিত্রনায়ক শাকিল আহসান, খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সাবেক সহ সম্পাদক শেখ মোহাম্মদ আবু হানিফ এবং আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক প্রত্যাশীদেরক আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠক ডাকা হয়। সাক্ষাৎকার শেষে হাবিবুন নাহারকে মনোনয়ন দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। নৌকার পক্ষে কাজ করতে অন্য মনোনয়ন প্রত্যাশীদেরকওে নির্দেশ দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

প্রজন্মনিউজ২৪/মোঃ মুস্তাইন কবির/আসাদুল ইসলাম

 

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ