স্বল্প মুল্যের সিম্ফনি এইচ ২৫০ নজর কেড়েছে

প্রকাশিত: ২৯ এপ্রিল, ২০১৬ ০২:৩৬:০৫

দেশের বাজারে ‘এইচ ২৫০’ নামের সিম্ফনি স্মার্টফোনটি এ বছরের জানুয়ারি মাসে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপোতে দারুন সাড়া ফেলে। সিম্ফনি দাবি করেছে, মেলায় তাদের যত স্মার্টফোন বিক্রি হয়েছিল তার ৭০ শতাংশ স্মার্টফোন ছিল এইচ ২৫০ মডেলটি। এ ছাড়া গত তিন মাসে এই ফোনটির একটি ইউনিটও কাস্টমার কেয়ারে সমস্যার জন্য আসেনি।

কী আছে ফোনটিতে? ফোনটির নকশা প্রথমে নজর কাড়বে। এরপরের বিষয় হচ্ছে এটি বেশ হালকা-পাতলা। সিম্ফনির দাবি, ফোনটিতে রয়েছে উন্নতমানের গ্লাস আর নতুন প্রজন্মের ইউনিবডি নকশা। ফোনটির বিশেষ বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এর মিরাভিশন প্রযুক্তি। মিরাভিশনের ফলে স্মার্টফোনটির স্ক্রিনের রঙ চোখে আরামদায়ক দেখায়। এ ছাড়া স্মার্টফোনটিতে ব্যবহৃত হয়েছে অ্যান্টিডাস্ট রিসিভার সিস্টেম ও ম্যাক্সব্যাস প্রযুক্তি। অ্যান্টিডাস্ট ধুলো-বালি প্রতিরোধ করে আর ম্যাক্সব্যাসের ফলে অডিও ভালো শোনায়।
ফোনের মধ্যে থাকা ‘অ্যাবাউট এইচ ২৫০’ নামের অ্যাপ্লিকেশনটিতে ক্লিক করলেই জানা যাবে ফোনের যাবতীয় তথ্য। ফিচার হিসেবে ফোনটিতে রয়েছে কোয়াড কোর এক দশমিক তিন গিগাহার্টজ কর্টেক্স এ৫৩ প্রসেসর, পেছনে ১৩ ও সামনে ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। ক্যামেরায় এইচডিআর, ফেস বিউটি, প্যানোরোমা, পিআইপি, মোশন ট্র্যাকার রয়েছে। স্মার্টফোনটির পেছনের ক্যামেরায় স্যামসংয়ের তৈরি থ্রিএলটু সেন্সর ব্যবহৃত হয়েছে। এ অ্যাপচার টু পয়েন্ট টু। অ্যাপচার যত কম হয় ছবি তত ডিটেইল ধরতে পারে। স্মার্টফোনটির পাঁচ ইঞ্চি মাপের ডিসপ্লে ফুল এইচডি। এতে ভিডিও দেখা আরামদায়ক। স্মার্টফোনটিতে রয়েছে এনহ্যান্সড গ্লাস সুরক্ষা, রেজুলেশন ১২৮০ বাই ৭২০ পিক্সেল। এতে আছে মালি টি৭২০ জিপিইউ।
অ্যান্ড্রয়েড ললিপপ ৫.১ চালিত স্মার্টফোনটিতে থ্রিজি ও টুজি নেটওয়ার্ক সমর্থন করে। এটির র‍্যাম ২ জিবি ও রম ১৬ জিবি। ওয়াই-ফাই, ব্লুটুথ, জিপিএস সুবিধা রয়েছে। এতে একটি মাইক্রো সিম ও একটি ন্যানো সিম ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে। মাইক্রোএসডি কার্ড সমর্থন করে ফোনটি।
ফোনটিতে র‍্যাম বেশি থাকায় গেম খেলতে সুবিধা হয়। সিম্ফনির দাবি, গেমিং অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করে সব ধরনের গেম খেলা যায়। এর স্টোরেজ ১৬ জিবি হওয়ায় এতে তথ্য রাখা যায় বেশি।
ক্রেতাদের মত, ফোনটির দুর্বল দিক এর ব্যাটারি। দুই হাজার ৩৫০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারির পারফরম্যান্স সন্তুষ্ট করার মতো নয়। ব্যাটারি আরও বাড়ালে ভালো হত। তবে ফোনটিকে হালকা-পাতলা করতে গিয়ে ব্যাটারির জায়গায় ছাড় দিয়েছে সিম্ফনি। তবে কল আদান-প্রদান, মেসেঞ্জার ব্যবহার, অডিও-ভিডিও চালানোর মতো বিষয়গুলোর ক্ষেত্রে ফোনটির পারফরম্যান্স ভালো।
প্রত্যন্ত অঞ্চলে ও প্রতিকূল পরিবেশে ফোনটি ব্যবহার করে ভালো ফল পাওয়া গেছে। ফোনটিতে সেলফি তোলার ভালো ব্যবস্থা আছে। এর দাম ১০ হাজার ৯৯০ টাকা। এইচ ২৫০ মডেলটি গ্রাহকদের কাছে মিডরেঞ্জের ফোন হিসেবে অন্যান্য ব্র্যান্ডের ফোনের সঙ্গে ভালোই প্রতিযোগিতা করছে।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন