রাস্তায় শুয়ে আছেন শুভ!


রাত সাড়ে ১০টা। রাজধানী ঢাকার একটি বাণিজ্যিক ভবনের পেছনের রাস্তা। সেই রাস্তার মাঝ বরাবর রক্তাক্ত শরীরে শুয়ে আছেন অভিনেতা আরিফিন শুভ। তাঁকে ঘিরে চারপাশে দাঁড়িয়ে আছে উৎ​সুক অসংখ্য মানুষ। কিন্তু কারই এগিয়ে যাওয়ার সাধ্য নেই। কারণ এ ঘটনাটি তৈরি করা হয়েছে দৃশ্যধারণের প্রয়োজনে। শুভ অভিনীত নতুন ছবির শুটিং চলছে।


এভাবেই রক্তাক্ত অবস্থায় বেশ কিছুক্ষণ শুয়ে থাকতে হলো আরিফিন শুভকে। তাঁর দিকে তাক আছে ক্যামেরা। বেশ কয়েকবার ‘শট’ নেওয়ার পর অবশেষে ‘ওকে’ (ঠিক) হলো সেই দৃশ্য।

ক্যামেরার পেছন থেকে ‘কাট’ বলে এগিয়ে আসলেন পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান। হাত ধরে টেনে তুললেন শুভকে।

সারা দিন মারামারির শুটিং করেছেন গুলশানের লেডিস পার্কে। এই কারণেই কি না কে জানে! শুভকে এ ছবির নাম জিজ্ঞেস করতেই বললেন, ‘ছেড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি’।

পরিচালক সোহান হেসে জানালেন, এ ছবির নাম ‘জেদী’।

‘জেদী’ ছবিরই দৃশ্যধারণের কাজ (শুটিং) হলো গতকাল রাতে। অবশ্য গতকালের শিডিউলে এটাই ছিল শুভর শেষ দৃশ্যর শুটিং।

খানিক পরে পোশাক পরিবর্তন করে শুভ এসে জানালেন, গত বছরের মাঝামাঝি থেকে শুরু হয়েছে এ ছবির নির্মাণকাজ। খুব তাড়াতাড়িই কাজ শেষ হয়ে যাবে।

‘জেদী’ ছবিতে শুভর সঙ্গে অভিনয় করছেন নতুন একজন নায়িকা।