৭৫ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে

প্রকাশিত: ০৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০৮:৪৩:৪৪

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী নতুন করে দমন অভিযান শুরুর পর গত এক সপ্তাহে প্রায় ৭৫ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। ত্রাণ শিবিরগুলোতে ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত রোহিঙ্গা ইতিমধ্যে আশ্রয় নিলেও প্রতিদিন এ সংখ্যা বেড়ে চলছে। জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআরের এক কর্মকর্তা রোববার এ তথ্য জানিয়েছেন।

ইউএনএইচসিআরের আঞ্চলিক মুখপাত্র ভিভিয়ান ট্যান আল-জাজিরাকে বলেছেন, গত ২৫ আগস্ট সহিংসতা শুরুর পর কমপক্ষে ৭৩ হাজার রোহিঙ্গা সীমান্ত পাড়ি দিয়েছে। আরো কয়েক হাজার বাংলাদেশে প্রবেশ করবে বলে আশা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘ এদের অধিকাংশই অবসন্ন, কেউ বলছে তারা কয়েক দিন ধরে অনাহারে এবং কেউ বলছে গত কয়েকদিনের ঘটনায় তারা মানসিকভাবে বিধ্বস্ত।’

তিনি জানান, শরণার্থী দলের সঙ্গে পরিবারবিহীন অবস্থা সীমান্ত পাড়ি দিয়েছেন এক নারী। ওই নারী জানিয়েছেন, তার স্বামীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে এবং তিনি তার ১৮ মাসের সন্তানকে শ্বশুর বাড়ি রেখে এসেছেন।

সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে অনেককে আবার মানবপাচারকারীদেরকে অর্থ দিতে হচ্ছে। মংড়ু থেকে আসা এক ব্যক্তি বলেছেন, ‘ জীবন বাঁচাতে আমরা  বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছি। সেনাবাহিনী ও চরমপন্থি এআরএসএ আমাদের লোকদের জীবন্ত পুড়িয়ে হত্যা করছে, আমাদের গ্রামে আগুন দিচ্ছে।’

তিনি জানান, মংড়ুর কুন্নাপাড়ায় তাদের বাড়ি। সেখানে ১১০জন রোহিঙ্গাকে হত্যার পর তারা পালানো সিদ্ধান্ত নেন। এরপর তাকে নৌকায় নদী পার হয়ে বাংলাদেশে আসার জন্য মানবপাচারকারীদেরকে পরিবারের সদস্যদের মাথাপিছু ১২ হাজার টাকা করে দিতে হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ