নিঃসঙ্গ মানুষকে সঙ্গ দিতে জাপানে নতুন রোবট

প্রকাশিত: ২৪ অগাস্ট, ২০১৭ ১২:৪১:৩৫

নিঃসঙ্গতা কোন বয়সেই মানুষই পছন্দ করে না। কিন্তু যদি এমন হয় যে তাকে সময় দেওয়ার মতো কোন মানুষ তার পাশে নেই তবে তা মেনে নেয়া ছাড়া আর কোন কিছুই করার থাকে না। কিন্তু একাকীত্ব কাটাতে জাপানের একজন বিজ্ঞানী উদ্ভাবন করেছেন এমন একটি রোবট যেটি কিনা কেবল সঙ্গই দেবে না, প্রয়োজনে মনিবের অনুপস্থিতিতে কর্মক্ষেত্রে তার প্রতিনিধিত্বও করবে।

এখনকার পৃথিবীতে শিশুদের নিঃসঙ্গতা যেন খুব পরিচিত আর সাভাবিক এক শব্দ। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে একক পরিবারের জনপ্রিয়তা, আর মা বাবা দুজনেই কর্মজীবী হওয়ায় বিশ্বব্যাপি শিশুরা একাই বেড়ে উঠছে। আর এই একাকিত্ব আরো খারাপ হয় যদি কেউ শারিরীকভাবে অসুস্থ থাকে। কোন শিশুই সেটা ভালোবাসে না।

তেমনি, ভালোবাসতেন না টোকিওর শহরটিতে বেড়ে উঠা রোবট নির্মাতা এবং বিজ্ঞানী ‘কেনতারো উসোফুজিও’ নিজের নিঃসঙ্গতা কাটানোর জন্য একটা বিকল্প সঙ্গি পাবার আকাঙ্খা তার সেই শৈশব থেকেই ছিলো ।

কেনতারো উসোফুজিও বলেন, আমার বয়স যখন ১০ বছর তখন একটানা সারে তিন বছর অসুস্থতার জন্য স্কুলে যেতে পারিনি। আমার খুব অসহায় লাগতো আর অসহ্য রকমের একা লাগতো । আমি তখন ভাবতে শুরু করলাম আমার যদি একটা স্বাস্থ্যবান বোন থাকতো তাহলে আমার চেয়ে তাঁর হয়তো স্কুলের স্মৃতি থাকতো । আমি তখন থেকেই রোবট বানানোর কথা চিন্তা শুরু করলাম।

কেনতারোর তৈরী করা এই রোবটের নাম আভাতার, কেনতারো বলছেন যেখানে তার মালিক স্বশরীরে উপস্থিত হতে পারবেন না, প্রয়োজনে সেখানে তাকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারবে অন্যদের কাছে। অর্থাৎ নির্দিষ্ট স্থানে আসা অন্যদের কাছে ভাব বিনিময় করতে পারবেন, প্রয়োজনে প্রতিনিধিত্ব করতে পারবে অন্যদের কাছে।

কেনতারো জানিয়েছে এই রোবট নিয়ন্ত্রণ করা যায় ইন্টানেটের মাধ্যমে। তাকে তাৎক্ষনিক বার্তা পাঠিয়ে যোগাযোগ করা যায়। তার মানে পৃথিবীর আরেক প্রান্ত থেকেও আপনি যোগ দিতে পারবেন কোন অফিসিয়াল বৈঠকে এবং তাতে উপস্থিত সহকর্মীদের সাথে রোবটের মাধ্যমে নিজেই কথা বলতে পারবেন।

এই মূর্হুতে জাপানের বিভিন্ন শহরে ১২০টি রোবট ভাড়া দেয়া হয়েছে, যা কাজ শেষে লোকে ফেরত দিতে পারবেন। জাপানের ভেতরে এর চাহিদা ক্রমেই বাড়ছে। সেই সঙ্গে আবার তার রফতানীর পরিকল্পনাও রয়েছে কেনতারোর।

এই রোবট যখন বানিজ্যিকভাবে বাজারজাত করা হবে তখন সাধারণ মানুষের নাগালের মধ্যে কতটা থাকবে সেটা একটা প্রশ্ন, কিন্তু কেনতারো বলছেন তার চেষ্টা থাকবে সাধারণ মানুষের সাধ্যের মধ্যেই রোবটির দাম নির্ধারণ করতে।

প্রজন্মনিউজ২৪.কম/ফয়সাল

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন



আরো সংবাদ