সোনা আমদানির অনুমতি চান ব্যবসায়ীরা

প্রকাশিত: ২৬ মে, ২০১৭ ১২:৫১:৪১

সোনা চোরাচালান ঠেকাতে আমদানির অনুমতি চেয়েছেন ব্যবসায়ীরা; সেই সঙ্গে চোরাই সোনা ভারতে যাচ্ছে বলেও দাবি করেছেন তারা।

আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলার পর সম্প্রতি তাদের সোনার দোকানে শুল্ক গোয়েন্দাদের অভিযানের প্রেক্ষাপটে বাজেটের আগে বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে নিজেদের দাবিগুলো তুলে ধরে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)।

ধর্ষণের মামলার আসামি আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলের পক্ষে অবস্থান না নেওয়ার কথাও বলেন বাজুস নেতারা। তবে ওই ঘটনাটি ধরে সোনার দোকানগুলোকে হয়রানি করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ তাদের।

জাতীয় প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে সোনার দোকান মালিকদের সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়ালা বলেন, আমাদের দেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে এলসি দিয়ে কোনদিন সোনা আমদানি করা হয়নি।

আমদানি না থাকায় ব্যবসায়ীদের সোনার উৎস অবৈধ পথে আসা বলে মনে করা হচ্ছে। এ বিষয়ে আগরওয়ালা বলেন, “আমরা বাই জেনারেশন এই ব্যবসা পেয়ে এসেছি, আমরা জানি সেটা বৈধ। আমাদের কোনোদিন বলা হয়নি তাঁতীবাজারের পোদ্দারদের থেকে আমরা যেই গোল্ড কিনি এটা অবৈধ। আমাদের কোনোদিন বলা হয়নি ব্যাগেজ রুলে একজন কাস্টমার যখন একশ গ্রাম সোনা নিয়ে আসে, সেটা কেনা অবৈধ।

“যেহেতু সরকার আমাদের কোনোদিন স্বর্ণ আমদানি করার সুযোগ দেয়নি, তাই আমরা তাই মনে করি, আমরা যেভাবে ব্যবসা করি সেটা বৈধ।”

পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন